মুজাহিদুল ইসলাম, ঔষধ ও স্বাস্থ্য পরামর্শকঃ
টিকা এক প্রকার ঔষধ যা পরীক্ষাগারে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে রোগের জীবাণু অথবা জীবাণু হতে উৎপন্ন বিষ (টক্সিন) থেকে তৈরী। টিকার মাধ্যমে রোগকে প্রতিরোধ করা যায়। পরীক্ষাগারে জীবাণু থেকে এমনভাবে টিকা তৈরী করা হয় যাতে রোগ সৃষ্টিকারী জীবাণুকে মেরে ফেলে টিকা তৈরী হয় অথবা জীবানুর রোগ সৃষ্টি করার ক্ষমতা নষ্ট করে দেয়া হয়। এখানে উল্লেখ্য যে, জীবানু জীবিত বা মৃত হতে পারে। টক্সিনকেও একইভাবে তার রোগ সৃষ্টি করার ক্ষমতাকে নষ্ট করে টক্সয়েডে রুপান্তরিত করা হয় এবং টিকায় ব্যবহার করা হয়। এই টিকা শরীরে প্রবেশ করার পর তা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে।
মনে রাখতে হবে যে, কার্যকর টিকা ভালো গুণসম্পন্ন এবং রোগ প্রতিরোধে সক্ষম। অকার্যকর টিকা গুণগত মান হারায় এবং রোগ প্রতিরোধে সক্ষম নয়, বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। তাই কোনো মতেই ব্যবহার করা যাবেনা।
বিভিন্ন রোগের টিকাসমুহ:

  1. ডিপিটি টিকা: ডিপথেরিয়া, হুপিং কাশি এবং ধনুষ্টংকার রোগ প্রতিরোধ করে।
  2. হেপাটাইটিস-বি: হেপাটাইটিস-বি ভাইরাস প্রতিরোধ করে।
  3. বিসিজি টিকা: যক্ষা রোগ প্রতিরোধ করে।
  4. হামের টিকা: হাম রোগ প্রতিরোধ করে।
  5. ওপিভি টিকা: পোলিও রোগ প্রতিরোধ করে।
  6. টিটি টিকা: নবজাতক এবং সন্তান ধারণক্ষম মহিলাদের ধনুষ্টংকার থেকে রক্ষা করে।